Business

৪ দিনের ছুটি, একদিকেই ছুটছেন হাজার হাজার পর্যটক

বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত একটা টানা ছুটি পেয়েছেন বহু মানুষ। যার হাত ধরে পরিবার নিয়ে একটু বেড়িয়ে নিতে চাইছেন তাঁরা। এবার তাঁরা ছুটছেন একদিকেই।

বৃহস্পতিবার থেকে ছুটি শুরু। শুরু বিআর আম্বেদকরের জন্মজয়ন্তী দিয়ে। শুক্রবার একাধারে বৈশাখের প্রথম দিন এবং গুড ফ্রাইডে। এরপর শনিবার ও রবিবার। ছুটি তাই শেষ রবিবারে পৌঁছে। ফের পুরোদমে কাজ শুরু হবে সোমবার থেকে। তার আগে এই ৪টে দিন পরিবারের সঙ্গে চুটিয়ে ছুটি উপভোগ করে নিতে চাইছেন মানুষজন।

এবার আবার পশ্চিম ভারত হোক বা উত্তর ভারত, গরম থাবা বসিয়েছে অনেক আগেই। চৈত্রেই সেখানে পারদ পৌঁছে গেছে ৪০ ডিগ্রির ওপর। অনেক জায়গায় তাপপ্রবাহ চলছে বা চলেছে। ফের বিশাল এলাকা জুড়ে তাপপ্রবাহের পূর্বাভাস রয়েছে।

যেহেতু সমতলে প্রাণান্তকর গরম, তাই এবার অধিকাংশ মানুষই ছুটছেন হিমাচল প্রদেশে। ৪ দিনের ছুটিটা গরম থেকে অনেক দূরে হিমাচলের পাহাড়ি এলাকার মনোরম আবহাওয়ায় কাটাতে চাইছেন তাঁরা। পর্যটকদের এই ভিড় সামাল দিতে উঠে পড়ে লেগেছে হিমাচলের হোটেলগুলো।

এই ৪ দিনের ছুটিতে হিমাচলে ৫০ হাজারের ওপর পর্যটক ভিড় জমাচ্ছেন। ফলে হোটেলে জায়গা দিয়ে ওঠাই একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে। আবার দীর্ঘ সময়ের পর এমন চাঙ্গা পর্যটনে খুশিও হোটেল মালিকরা।

সিমলা, কুফরি, মানালি, ধরমশালা, পালামপুর, কসৌলি, চাইলি-র মত পর্যটন কেন্দ্রে ঘুরতে যাওয়া পর্যটকরা খরচ সামাল দিতেও হিমসিম খাচ্ছেন।

গতবছর যে হোটেলে একদিনে থাকার খরচ ছিল ১ হাজার টাকা, সেখানে এবছর তা বেড়ে হয়েছে ৫ হাজার টাকা। তাল মিলিয়ে খরচ বেড়েছে খাওয়ার, ঘোরার। তবে সে ধাক্কা সামলেও পর্যটকরা ছুটছেন হিমাচলে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.