Lifestyle

তৈরি হল একটাই কেক, বিতরণ হল পুরো মেলায়

একটাই কেক তৈরি করা হয়েছিল। তারপর সেই কেকই বিতরণ করে দেওয়া হল মেলায় আগত সকলের মধ্যে। এভাবেই তৈরি হল একটি অনন্য রেকর্ড।

মেলাটা কেককে ঘিরেই। ২২ তম প্রাদেশিক ফ্রায়েড কেক উৎসবের আয়োজন হয়েছিল প্রতিবছরের মতই। সেখানেই অন্যতম আকর্ষণ হয়ে উঠেছিল একটি ফ্রায়েড কেক তৈরি।

কেক তৈরি করতে ময়দা লাগে। এ কেকটি তৈরির জন্য নেওয়া হয়েছিল ২ হাজার ৬৪৫ পাউন্ড ময়দা। যা মাখার জন্য একজন নয় অনেককে ডেকে নেওয়া হয়েছিল শেফের পোশাক পরিয়ে।

ওই বিপুল পরিমাণ ময়দা মাখতে কার্যত হিমসিম খেয়ে যান তাঁরা। তারপর বেলার পালা। সেও এক দেখার মত কাণ্ড। অতিকায় ময়দার মণ্ডটি একটি বিশাল লম্বা রোলারের সাহায্যে বেলা হয়। যা বেলতে রোলারটিকে পা দিয়ে গড়াতে থাকেন ২ জন।

বাকিরা রোলারের ২টি ধার ধরে সেটিকে গড়াতে থাকেন ময়দার ওপর। এভাবে তৈরি হয় কেকের জন্য একটি সমান প্রায় গোলাকার রুটির মত জিনিস। যা এরপর মাখিয়ে নেওয়া হয় ৩ হাজার ৫২৭ পাউন্ড গলিত ফ্যাটে।

এবার একটি গোলাকার জালের ওপর দিয়ে তা আঁচের ওপর রাখা হয়। এভাবেই তৈরি হয় একটি বিস্কুট রঙয়ের অতিকায় ফ্রায়েড কেক।

১৬ ফুট ব্যাসের এই কেক তৈরি দেখতে মানুষের ভিড় জমে যায়। মেলায় আগত অনেকেই অবাক চোখে তাকিয়ে থাকেন কেকটির দিকে।

উদ্যোক্তারা সেই কেকটিকে টুকরো টুকরো করে সকলের মধ্যে বিলিয়ে দেন। মেলায় এমন কেউ ছিলেন না যিনি কেকের টুকরো থেকে বঞ্চিত হন।

উদ্যোক্তারা এও জানিয়েছেন যে এটাই হল বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রায়েড কেক। তাঁরা গিনেস বুকে নাম তুলে ফেলেছেন। এই কেক তৈরি হয় আর্জেন্টিনার মার্সিডিজ শহরে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.