Entertainment

খাঁচা বন্দি জানোয়ারের সঙ্গে লকডাউনে বন্দি মানুষের তুলনা করলেন অমিতাভ বচ্চন

অমিতাভ ট্যুইট করে হিন্দিতে লিখেছেন, এখন যদি কেউ কাউকে ফোনে যোগাযোগ করতে চান, তাহলে এটাও ফোনে উত্তর দেওয়া যাবে না যে সাহেব বাড়ি নেই!

একটা জানোয়ারকে খাঁচায় আটকে রাখা হল। তারপর তাকে বছরের পর বছর ধরে সেই খাঁচাতেই রেখে দেওয়া হল। অনেকগুলো বছর পর আচমকা একদিন সে দেখল তার খাঁচার দরজা খুলে গেছে। এমন হলে কিন্তু ওই জানোয়ার খোলা দরজা দিয়ে হুট করে পালিয়ে যাবেনা। বরং খোলা দরজাটার দিকে অবাক চোখে তাকাবে। তারপর একটা প্রবল কিন্তু কিন্তু মনোভাব নিয়ে একটা পা ফেলবে।

যে তার এতদিন পরিচর্যা করে এসেছে তার দিকে অবাক চোখে তাকাবে। তার দিকে জিজ্ঞাসু চোখে দেখবে। সত্যিই সে বেরিয়ে যেতে পারে! এটা সত্যি? তাঁর নয়া ব্লগ পোস্টে এটা লিখেছেন কিংবদন্তি মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন।

অমিতাভ আরও লিখেছেন, লকডাউন একদিন যখন উঠবে। মানুষ বাড়ি থেকে বার হতে পারবেন। তখন তাঁদের ক্ষেত্রেও অভিব্যক্তিটা এমনটাই হবে। বাড়ি থেকে বার হওয়ার অনুমতি পেলেও তাঁরা তখন বাড়ি থেকে বার হতে ইতস্তত করবেন। অনেকে দুম করে বাড়ি থেকে বার হতে চাইবেন না।

নিছক মজার ছলেই অমিতাভ ট্যুইট করে হিন্দিতে আরও লিখেছেন, এখন যদি কেউ কাউকে ফোনে যোগাযোগ করতে চান, তাহলে এটাও ফোনে উত্তর দেওয়া যাবে না যে সাহেব বাড়ি নেই!


করোনা চেন ভাঙতে গোটা দেশ এখন গৃহবন্দি। অমিতাভ বচ্চনও তার ব্যতিক্রম নন। তিনি যখন মুম্বইতে তাঁর বাড়িতে বন্দি, তখন তাঁর স্ত্রী জয়া বচ্চন বন্দি দিল্লিতে। সংসদ চালু থাকায় তিনি সাংসদ হিসাবে দিল্লিতে ছিলেন। তারপরই লকডাউন ঘোষণা হয়ে যায়। ফলে তিনি মুম্বইতে পরিবারের কাছে ফিরতে পারেননি। এখনও তিনি দিল্লিতেই বন্দি।

এদিকে মহারাষ্ট্রে হুহু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বাড়ছে মৃত্যু। মুম্বই শহরও রয়েছে লাল সতর্কতার মধ্যেই। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button