National

বছরের প্রথম দিনেই দশকের রেকর্ড ভাঙল রাজধানীর ঠান্ডা

দাঁতে দাঁত লাগা ঠান্ডায় কাঁপছে রাজধানী। পয়লা জানুয়ারি যেখানে শহরের ঠান্ডা নামল তা গত ১৪ বছরে নামেনি। সঙ্গে রয়েছে কুয়াশার দাপটও।

নয়াদিল্লি : বছরের প্রথম দিনে ঠান্ডা থাকেই। ভরা শীতে ঠান্ডা থাকাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সেই ঠান্ডা যদি খোদ রাজধানীর বুকে এমন জায়গায় পৌঁছয় যা দেখে কাশ্মীরের কোনও পাহাড়ি এলাকার শীতের পারদ বলে মনে হয় তাহলে তা অবশ্যই উল্লেখযোগ্য। তেমনটাই কিন্তু হল দিল্লিতে। পারদ নামল ১.১ ডিগ্রিতে। গত ১৪ বছরে এই তলানিতে দিল্লির ঠান্ডা নামেনি।

খতিয়ান বলছে দিল্লিতে ২০০৬ সালে জানুয়ারিতে ০.২ ডিগ্রিতে নেমেছিল পারদ। সেটাই এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। এবার জানুয়ারির প্রথম দিনেই সেই রেকর্ডের ধারে কাছে পৌঁছে গেল পারদ।

এবার দিল্লি গত অক্টোবর থেকেই ঠান্ডার রেকর্ড গড়ছে। বহু বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দিচ্ছে। অক্টোবরের পর নভেম্বর ও ডিসেম্বরেও একই ছবি নজর কেড়েছে। হাড় কাঁপানো ঠান্ডা দিল্লির প্রাত্যহিক আবহাওয়া হয়ে দাঁড়িয়েছে। নতুন বছরের প্রথম দিনে তা সবচেয়ে তলানিতে নামল।

পারদ তলানিতে ঠেকার পাশাপাশি অতিঘন কুয়াশায় দিল্লি মুখ ঢেকেছে। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে বছরের প্রথম দিন ভোরে দিল্লির দৃশ্যমানতা শূন্য মিটারে নেমেছিল। যার অর্থ দাঁড়ায় সামনের মানুষকেও দেখা যাওয়া মুশকিল কুয়াশার জন্য।


এমন কুয়াশা অবশ্য দিল্লিতে নতুন নয়। প্রতি বছরই শীতে এমন এক অতি ঘন কুয়াশা দিল্লিতে হানা দেয়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অবশ্য দৃশ্যমানতা এদিন বেড়েছে। এমন এক অতিঘন কুয়াশার দিন আগামী ৭ জানুয়ারিও পেতে পারে দিল্লি বলে পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।

হাওয়া অফিস অবশ্য এও জানিয়েছে যে শনিবার থেকে দিল্লির পারদ ফের বাড়বে। ৩ জানুয়ারি থেকে ৫ জানুয়ারির মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। আকাশ মেঘলাই থাকবে ৩ থেকে ৫ তারিখের মধ্যে। মাঝারি বৃষ্টি হবে।

৪ জানুয়ারি বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিও হতে পারে। ৫ তারিখের পর পারদ ৮ ডিগ্রিতেও পৌঁছতে পারে। উত্তর পশ্চিম ভারতের অনেক জায়গায় গত ২ দিনে ০ বা তার চেয়ে সামান্য ওপরে রেকর্ড হয়েছে পারদ। কনকনে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা থেকেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button