Kolkata

জলের তলায় কলকাতা, বাড়িতেও ঢুকল জল

কলকাতার জল নামা অনেকটাই নির্ভর করে গঙ্গার ভাটার ওপর। কিন্তু একটানা বৃষ্টি চলতে থাকায় ভাটার সময়কে কাজে লাগিয়েও কলকাতার জল নামেনি।

বুধবার থেকেই চলছিল বৃষ্টি। তা বৃহস্পতিবার প্রকোপ বাড়ায়। যা নিরলস ধারাপাতের চেহারা নেয় সন্ধে থেকে। ফলে কলকাতা চলে যায় জলের তলায়।

বৃহস্পতিবার রাতেই অনেক এলাকায় নৌকার দেখা মেলে। আর রাত যত বেড়েছে ততই চেহারা বদলেছে বানভাসি তাণ্ডব।

বৃহস্পতিবার থেকে বৃষ্টির প্রকোপ বাড়তে থাকে। সকাল থেকেই কালো আকাশে ঢাকা ছিল কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের আকাশ। বেলা বাড়তেই শুরু হয়ে যায় বৃষ্টি। যা ক্রমশ তার প্রকোপ বাড়াতেই থাকে।

বৃষ্টির জেরে অনেকেই বাইরে বার হওয়ার পরিকল্পনা থেকে সরে আসেন। আর যাঁদের বাড়ি থেকে বার হতেই হয়েছে তাঁদের চরম পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়।

এদিকে দুপুরের দিকে দফায় দফায় বৃষ্টি এলেও বিরামহীন বৃষ্টি শুরু হয় সন্ধে নামতেই। তারপর থেকে যে একটানা তুমুল বৃষ্টি হতে থাকে তা দেখে অনেকেই চিন্তায় পড়ে যান।

আমহার্স্ট স্ট্রিট, ঠনঠনিয়া থেকে দক্ষিণের ভবানীপুর, পশ্চিমের বেহালা সহ বিভিন্ন এলাকা জলের তলায় চলে যায়। জল বাড়তেই থাকায় অনেকের বাড়িতেই জল ঢুকে যায়। বাড়ির একতলা অনেকেরই জলের তলায় চলে যায়।

কলকাতার জল নামা অনেকটাই নির্ভর করে গঙ্গার ভাটার ওপর। কিন্তু একটানা বৃষ্টি চলতে থাকায় ভাটার সময়কে কাজে লাগিয়েও কলকাতার জল নামেনি।

বানভাসি এই চেহারা শুধু কলকাতা বলেই নয়, দক্ষিণবঙ্গের অনেক শহরেই দেখা যায়। কারণ এ বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গের অনেক জায়গার পরিস্থিতি শোচনীয় করে তোলে। বিশেষত দক্ষিণ ২৪ পরগনায় অনেক জায়গার পরিস্থিতি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

সেখানে বৃষ্টির প্রকোপ ছিল ভয়ংকর। অনেক জায়গায় সমুদ্র বাঁধের হাল বেহাল হয়। ফলে অন্য জায়গায় জল ঢোকার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

কিছু মানুষকে সে কথা মাথায় রেখে সরিয়ে নিয়ে যায় জেলা প্রশাসন। বঙ্গোপসাগরের ওপর সৃষ্টি হওয়া একটি নিম্নচাপের জেরে এই প্রবল বৃষ্টি চলছে।

Show More
Back to top button