National

৮৭ বছর পর ফের কানে আসতে চলেছে রেলের হুইসল

৮৭ বছর অপেক্ষা করেছেন এখানকার মানুষ। ভারতের কোণায় কোণায় রেল পৌঁছে গেলেও ১৯৩৪ সাল পর্যন্ত রেল যোগ থাকা এই শহর এতদিন বঞ্চিত ছিল রেল পরিষেবা থেকে।

নয়াদিল্লি ও পাটনা : ৮৭ বছরের অপেক্ষার অবসান। ৮৭ বছর পর বিহারের নিরমলি টাউনে আবার শোনা যাবে ট্রেনের হুইসল। জেলার বাসিন্দারা প্রচণ্ড খুশি। সারা ভারতে অজস্র ট্রেনের লাইন ছড়িয়ে আছে জালের মত। কিন্তু গত ৮৭ বছর ধরে রেল পরিষেবা থেকে বঞ্চিত ছিলেন বিহারের সুপৌল জেলার নিরমলি টাউনের বাসিন্দারা।

এখানকার তরুণ প্রজন্ম গল্প শুনেছেন তাঁদের দাদু ঠাকুমার কাছে যে একসময় তাঁদের শহরেও ট্রেন এসে থামত। ১৯৩৪-এর ভয়াবহ ভূমিকম্প রাতারাতি নিরমলি থেকে সরাইগড়ের মধ্যে দীর্ঘ রেললাইন নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছিল। তারপর থেকে এতদিন নতুন করে রেল ব্যবস্থা চালুই হয়নি ওই লাইনে।

পূর্ব মধ্য রেল শাখার মুখপাত্র রাজেশ কুমার জানান, গত বছর ১৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কোশী মহাসেতুর মানুষদের জন্য নতুন রেল প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন।

সেই অনুযায়ী রেললাইন সম্প্রসারণের কাজ শুরু হয় জোরকদমে। সক্রি থেকে ঝাঞ্ঝরপুর অবধি রেললাইন পাতার কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। লকডাউনের সময় বিশেষ ট্রেন ঝাঞ্ঝরপুর অবধি যাতায়াত করেছে।


সক্রি-ঝাঞ্ঝরপুর-নিরমলি রুটের কাজ এখনও চালু আছে। এই বছর জুনের মধ্যেই সম্পূর্ণ হবে এই রুটের কাজ। কোশী ব্রিজ হয়ে নিরমলি-সরাইগড়-সহর্সা রুটটি সম্পূর্ণ হয়েছে।

যদিও ২০০৩ সাল থেকে এই রেললাইন পুনরায় পাতার কাজ শুরু হয়। তবে এই বছর থেকেই তা সাধারণ মানুষ ব্যবহার করতে পারবেন বলে আশ্বাস দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। যা এখানকার মানুষের ৮৭ বছরের অপ্রাপ্তি মুছে দেবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button