State

দিঘা থেকে কাকদ্বীপ, সমুদ্রের জল হুহু করে ঢুকছে শহর, গ্রামে

সওয়া ৯টায় ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়ল ঘূর্ণিঝড় যশ। এদিকে যশ-এর প্রভাবে এদিন সকাল থেকেই প্রবল জলোচ্ছ্বাস শুরু হয় এ রাজ্যের উপকূলেও। জল ঢুকছে শহর থেকে গ্রামে।

দিঘা শহরে ক্রমশ বাড়ছে সমুদ্রের জল। গার্ডওয়াল অনেক জায়গায় ভেঙে গেছে। অতিভয়ংকর চেহারা নিয়ে সমুদ্র উথাল পাতাল করছে। গার্ডওয়াল পার করে জল ঢুকছে শহরে।

সমুদ্রের জল স্রোতের মত বইছে দিঘা শহরের মধ্যে দিয়ে। গোটা শহরটা জলের তলায় চলে গেছে। খড়কুটোর মত ভেসে যাচ্ছে জিনিসপত্র।

এদিকে একই ছবি শঙ্করপুরেও। শঙ্করপুরে গত মঙ্গলবার থেকেই সমুদ্রের জল ঢুকে আসছিল। তা এদিন ভোর থেকে আরও ভয়ংকর চেহারা নেয়। প্রচুর জল ঢুকতে শুরু করে শঙ্করপুরে।

মন্দারমণির ছবিও একই রকম। সেখানেও সমুদ্রের জল বহু দূর পর্যন্ত ঢুকে এসেছে। হোটেলে জল ঢুকে থৈথৈ করছে। হোটেলে জল ঢুকেছে দিঘাতেও।


পূর্ব মেদিনীপুরের উপকূল জুড়েই এই ছবি দেখা যাচ্ছে। পূর্ণিমার ভরা কোটালে জলোচ্ছ্বাসের চেহারা অতিভয়ংকর হয়ে উঠেছে। যশ স্থলভাগে প্রবেশের পর এখানে ঝড় ও সঙ্গে বৃষ্টিও হচ্ছে লাগাতার।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার চেহারাটাও প্রায় একই। সাগর থেকে কাকদ্বীপ, নামখানা থেকে ফ্রেজারগঞ্জ। সর্বত্র সমুদ্রের জল হুহু করে শহর গ্রামে ঢুকছে।

অনেক মানুষ এদিন সকালেই পালাতে শুরু করেন বাড়ি ঘর ছেড়ে। বহু মানুষের চোখেই জল। বাড়ি ঘর ভেসে যাচ্ছে জলে। জল ক্রমশ ঢুকে চলেছে। ফলে জলস্তরও বেড়ে চলেছে।

একই অবস্থা অনেক নদীতে। এখানকার অধিকাংশ নদীই ফুঁসছে। দুকুল ছাপিয়ে জল ঢুকে আসছে নদী তীরবর্তী এলাকায়।

Show Full Article
Back to top button