Tuesday , May 21 2019
Bengali Horoscope Capricorn

মকর রাশির ২০১৯ বছরটা কেমন যাবে ও কি করলে ভালো থাকবেন – শিবশংকর ভারতী

পাঠক-পাঠিকাদের অবগতির জন্য বলি, এখানে যে প্রতিকার দেওয়া হল তা সারা জীবনের জন্য নয়। সাময়িক অস্বস্তিকর সময়ের হাত থেকে খানিকটা স্বস্তি পেতে। যখন সময়টা ধীরে ধীরে শুভ হয়ে উঠবে, তখন প্রতিকার না করলেও চলবে। করলে কল্যাণ কিছু হবে, না করলে ক্ষতি কিছু হবে না। প্রতিকারটা জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর – এক বছরের জন্য করতে পারেন।

প্রতিকারগুলো নিষ্ঠার সঙ্গে করলে ফল অবধারিত। অশ্রদ্ধা, অবিশ্বাস ও অভক্তিতে করলেও ফলের মার নেই। তবে ফল তাড়াতাড়ি না দেরিতে, তা নির্ভর করে ব্যক্তিগত জন্মকালীন সার্বিক গ্রহাবস্থানের উপর, যা বিশদ আলোচনা সাপেক্ষ।

জন্মের পর থেকে এই রাশির জাতক জাতিকারা দেখেছে চারদিকে ছড়িয়ে আছে হিংসা-দ্বেষ অহংকার ও স্বার্থের পসরা। তার মধ্যে দিয়ে দুঃখবাদের কারক মকর রাশির অধিপতি শনি মূল লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়। এদের চরিত্রে প্রকাশ পায় কর্মে নিষ্ঠা, কঠোর পরিশ্রম, অধ্যবসায় ও একাগ্রতা। সমস্ত দুঃখ কষ্টকে জয় করার ক্ষমতা যেন আত্মশক্তির মধ্যেই নিবিড়ভাবে নিহিত আছে। বয়েস বৃদ্ধির সঙ্গে এই রাশির প্রতিষ্ঠা যশ সম্মান অর্থ ক্রমোত্তর বৃদ্ধি পেতে থাকে। এদের মন ও মত, কর্মচিন্তা ও পদ্ধতি সাধারণের তুলনায় একটু ভিন্ন ধরণের।

পরিশ্রম করে এরা সফল হয় তবে সাফল্য দেরিতে। বিবাহ প্রায়ই পরিচিতের মধ্যে সংঘটিত হয়। আত্মীয়রা তেমন উপকারে আসে না। সংসারী হয়, উদাসীন খুব কর্মক্ষেত্রে। বিলাসে প্রমত্তের চেয়ে এরা একেবারেই সাধারণ জীবনযাপনের পক্ষপাতী।

কর্মজীবনে ব্যবসায়ীদের বছরটা কাটবে ভালো মন্দ মিশিয়ে। কখনও শুভ যোগাযোগে উৎসাহিত আবার কখনও হতাশ হবেন। এরকম ভাবে কেটে যাবে বছরটা। এক কথায় বছরটা না খুব মিঠে না খুব কড়া। পেশায় নিযুক্তদের ক্ষেত্রে একই কথা বলা চলে। তবে উভয়ের ক্ষেত্রে শুভ যোগাযোগ মাঝে মধ্যে বেশ ভালোর দিকে নাড়া দিয়ে যাবে।

অর্থভাগ্যের কমবেশি উন্নতি হবে। আর্থিক ব্যাপারে যোগাযোগ বাড়বে। কোনও বয়স্ক ব্যক্তির সহায়তায় অর্থাগম হবে। এককালীন বেশ কিছু অর্থলাভের সম্ভাবনা। যে কোনও ভাবে অর্থ লাভের সুযোগ বৃদ্ধির যোগ। হুট করে মোটা অর্থ ব্যয়ের যোগ।

স্বাস্থ্যটা ভালো যাবে না। প্রায়ই বড্ড বিব্রত করবে। অপ্রত্যাশিতভাবে কিছু অর্থ নষ্ট বা ব্যয় হবে। মাঝে মাঝে কিছু অর্থাগম হবে কোনও কাজের কারণে তবে তা মনের মতো নয়। ব্যয় চাপ এতটুকুও কমবে না। ঝুঁকির কাজে অর্থ বিনিয়োগে বোকামি করা হবে। যেমন চলছে তেমন চলতে দিন।

যাদের দীক্ষা হয়নি তাদের অনেকের দীক্ষা লাভ হবে। কোথাও বেড়াতে যাবেন সেটা পাহাড় কিংবা দেবালয়ে। এবছর একাধিকবার ভ্রমণ হবে।

প্রতিষ্ঠা জীবনে কোনও বিশেষ সুযোগে অর্থ বা অন্য কোনও ভাবে লাভবান হবেন। কোনও উপহার বা এমন কিছু পাবেন যেটা আপনার ক্ষেত্রে বেশ কাজে আসবে। এমন কোনও সুযোগ আসবে যেটা আপনার ক্ষেত্রে অত্যন্ত ফলদায়ক।

এ বছর নিজ গৃহে এবং আত্মীয়ের গৃহে একাধিকবার শুভ কর্মানুষ্ঠান হবে। নিজ গৃহে আত্মীয় সমাগম বাড়বে। স্বাস্থ্য মাঝে মাঝে মনের আমেজ নষ্ট করব। কোনও কারণে বছরে বেশ কয়েকবার মানসিক উদ্বেগ বাড়বে যা কাজের ক্ষেত্রে মনকে বিচলিত করে রাখবে তবে সেটা তেমন মারাত্মক কিছু নয়।

দেব দেবীর উপর বিশ্বাস আছে তবে মন্দির বা দেবালয় বা আশ্রমে মাঝে মাঝে যাওয়া বা দু-চার মিনিট বসায় অরুচি আছে। এ বছর ওই অরুচিটা অন্যান্য সময়ের মতো থেকে যাবে। কোনও নিকট আত্মীয় কিংবা বন্ধুর ব্যবহার আপনার মনকে ভরিয়ে তুলবে। ঝামেলা এড়িয়ে চলুন।

কি করলে একটু ভালো থাকবেন :

প্রতি শনিবার প্রতিষ্ঠিত শনি মন্দিরে অথবা নবগ্রহ মন্দিরে যেতে পারেন। ফুটপাথে গজিয়ে ওঠা নয়। মন্দিরে সাদা বাতাসা, সাদা ফুলের মালা দিয়ে সারাদিনে যখন খুশি পুজো দিতে পারেন। উপোষের প্রয়োজন নেই। তেল চলবে না। ঘিয়ের রান্না নিরামিষ খেতে পারেন। এক বেলা আতপ চালের ভাত, আর একবেলা নিরামিষ যা খুশি।

কি রঙের পোশাক পরবেন :

সারাবছর একটু চেষ্টা করুন পোশাকের রঙটা সবুজ, আকাশী, হালকা বা একটু গাঢ় হলুদের মধ্যে রাখতে। দেহমন কর্ম ও পারিবারিক ক্ষেত্রের অস্বস্তি অনেকটাই কাটবে। অধিকাংশ শুভ প্রচেষ্টায় সাফল্য আসবে। বাড়ি ঘরের রং হলুদ রাখলে ভালো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *