Horoscope

মিথুন রাশির ১৪২৯ বাংলা বছরটা কেমন কাটবে

১৪২৯ সালের ১ বৈশাখ থেকে চৈত্র সংক্রান্তি পর্যন্ত মিথুন রাশির মোটামুটি বছরটা কেমন যাবে তার সম্ভাব্য ফলাফল লিখতে চেষ্টা করেছি।

এ বছর বৈশাখ মাস থেকেই সময়টা ধীরে ধীরে শুভত্বের দিকে যাবে। ব্যবসা, পেশা বা চাকুরিয়াদের কর্ম ও আর্থিকক্ষেত্রে কিছু না কিছু উন্নতি হবে।

অপ্রত্যাশিত কিছু অর্থাগম হবে। দূরে কোথাও বেড়ানো বা কাজে যাবেন। কোনও মাঙ্গলিক কর্মানুষ্ঠানে একাধিকবার নিমন্ত্রিত হবেন। স্বাস্থ্য মাঝেমধ্যে বিব্রত করলেও মোটের উপর ভালো।

আত্মীয়রা তেমন কোনও উপকারে আসবে না। হঠাৎ দেবালয় ভ্রমণ হবে একাধিকবার। বিবাহের যোগাযোগ হয়েও ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা।

শেয়ার বাজারের সঙ্গে যুক্তরা কোনও ঝুঁকি নেবেন না। শত্রুনাশ যোগ। প্রেমপ্রীতির ক্ষেত্রে প্রেমিক প্রেমিকাদের প্রীতি ও আন্তরিকতা বাড়বে।

মিথুন লগ্নের স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালোই চলবে। কমবেশি আর্থিক উন্নতি, কোথাও বেড়াতে যাওয়া, অপ্রত্যাশিত যোগাযোগে আনন্দিত হবেন।

এখানে যে প্রতিকার করা হল তা শুধুমাত্র একবছরের জন্য পালন করতে হবে। প্রতি শনিবার কোনও ভিখারীকে তৈরি করা খাবার যা মন চায় দেবেন সঙ্গে যা মন চায় দক্ষিণা। এমন খাবার দেবেন না যেটা তৈরি করে খেতে হবে। কাজটা করলে অনেকটা দুর্ভোগের হাত থেকে মুক্তি পাবেন।

এই রাশির জাতক জাতিকারা তমোগুণাশ্রিত। মন এদের উদার, উন্নত নয়। জীবনে একদিকে যৌবনচিত কর্মচাঞ্চল্য, অন্যদিকে তেমন অপরিণত বুদ্ধির বিকাশ। এই রাশির স্বপ্নসৌধ প্রায়ই ভেঙে চুরমার হয়ে যায় নিদারুণ নির্মম বাস্তবতার আঘাতে।

দূরঅভিসন্ধিমূলক কাজে বেশি আনন্দ পায়। ব্যবসা সংক্রান্ত বুদ্ধি এদের প্রশংসনীয়। মৌলিক জ্ঞানের চেয়ে পাণ্ডিত্য বেশি। তর্কে পেরে ওঠা কঠিন।

মিথ্যা কথায় মেষ রাশির মত পটু। স্বভাব চঞ্চল বলে একাধিকবার প্রেমে পড়ে। কোনও প্রেমই দীর্ঘস্থায়ী রাখতে পারে না।

মিথুন রাশির জাতক জাতিকাদের কথার সঙ্গে কাজের সঙ্গতি প্রায়ই পাওয়া যায় না। এরা বিশ্বাস করে ঠকে। অন্যের কথায় প্রভাবিত হয়। এদের যেকোনও ভাবে পরিচিতি বেশি।

আমার জ্যোতিষশাস্ত্রের শিক্ষাগুরু শ্রীশুকদেব গোস্বামীর গ্রন্থের সাহায্য নিয়ে এই অংশটুকু লেখা হয়েছে। এর সঙ্গে সংযোজন করা হয়েছে নিজের পেশাগত জীবনের বেশ কিছু অভিজ্ঞতার কথা। লেখক চিরকৃতজ্ঞ হয়ে রইল উক্ত গ্রন্থের লেখক ও প্রকাশকের কাছে।

প্রতিকারগুলি আমার মনগড়া কোনও কথা নয়। বিভিন্ন সময়ে ভারতের নানা প্রান্তে ভ্রমণকালীন পথচলতি সাধুসঙ্গের সময় লোক-কল্যাণে সাধুদের বলা প্রতিকারগুলিই এখানে করা হল।

সব কথা মিলবে, এমনটা ভাববার কোনও কারণ নেই। এখানে রাশির ওপর ভিত্তি করে ভাগ্যফল নিয়ে যা লেখা তা অভিজ্ঞতায় দেখা একটা আভাস মাত্র। এটাই বাস্তব সত্য বলে ধরে নিয়ে চলাটা কোনও কাজের কথা নয়, চলার কারণ আছে বলেও মনে হয় না।

Show More

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.